Basic Info BD https://www.basicinfobd.com/2022/02/blog-post_27.html

আপনার কি রাউটার সেটিংস পরিবর্তন করা উচিত?

ইন্টারনেট জগতে রাউটার খুবই পরিচিত একটি নাম। অফিস, আদালত, বাসা, বাড়ি যে কোন জায়গাতে ব্রড ব্যান্ডের অর্থাৎ ইন্টারনেট সংযোগ নিতে গেলে রাউটারের প্রয়োজন হয়। নেট স্পীড, ব্যান্ড উইথ ইত্যাদি রাউটারের ওপর নির্ভর করে। তাই আজকে আমরা জানব Router সেটিংস এ গিয়ে কি পরিবর্তন করলে রাউটারের সর্বোচ্চ ভাল পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে।




রাউটার কিঃ 

রাউটার হল এক ধরণের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস, যা নেটওয়ার্কিং এর কাজে ব্যবহৃত হয়। এটি একাধিক কম্পিউটার নেটওয়ার্ককে সংযুক্ত করতে পারে তার বিহীন সংযোগের মাধ্যমে। আমরা যে Router গুলো ব্যবহার করে থাকি তা সাধারণত দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি হল 2.4 GHz এবং ওপর টি হল 5 GHz । 

রাউটারের ব্যবহারঃ

প্রতিটি ডিভাইসের ই যথাযথ ব্যবহারের নিয়ম রয়েছে। ঠিক তেমনি রাউটারেরও ব্যবহারের কিছু নিয়ম রয়েছে। সেটা যে কোন ব্র্যান্ড এর ই Router হোক না কেন। যথাযথ ভাবে ব্যবহার করতে না পারলে অনেক সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন নেট কানেকশন লস্ট, স্লো স্পীড , পাসওয়ার্ড সিকিউরিটি ইত্যাদি।

রাউটার সেটিংস এর ফাংশন গুলো আমরা অনেকে জানি আবার অনেকেই জানি না। রাউটার সেটিংস এর বেশ কিছু ফাংশন রয়েছে যে গুলোর সঠিক ব্যবহার আপনার জানা থাকলে আপনি আপনার রাউটার থেকে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স পাবেন। অনেক সময় দেখা যায় নেট স্পীড স্লো হলে আমরা সার্ভিস প্রোভাইডারদের দোষারপ করি, কিন্তু এই নেট স্পীড Router সেটিংস এর ফাংশন এর কারনেও হতে পারে। 

তবে সার্ভিস প্রোভাইডাররা যে একেবারে ধোয়া তুলশি পাতার মত তা কিন্তু নয়। আসলে আমি বুঝাতে চাচ্ছি রাউটার সেটিংস এর ফাংশন এর কারনে নেট স্পীড যেন স্লো না হয়। আমাদের চার পাশে যেমন- বাসাবাড়ি, অফিস, বাজার এ অনেক রাউটার ব্যবহৃত হচ্ছে এবং সকল Router সেটিংস এর ফাংশন একই ফলে এগুলোর মধ্যে কনফ্লিগ করে এবং বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। তো চলুন আর দেরি না করে রাউটার সেটিংস এর ফাংশন গুলো জেনে নিই-  

পাসওয়ার্ডের প্রাইভেসি নিশ্চিত করনঃ 

রাউটারের পাসওয়ার্ড খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। যার ওপরে আপনার রাউটারের ইউজার ডিপেন্ড করছে। রাউটারের পাসওয়ার্ড যদি সবাই জেনে যায়, অর্থাৎ ইউজার সংখ্যা বেড়ে গেলে আপনার নেট স্পীড স্লো হবে এটাই স্বাভাবিক। তাই আপনার রাউটারের সেটিংস এ গিয়ে পাসওয়ার্ড টি চেঞ্জ করে দিন। এখন আপনার Router এর ইউজার সীমিত রাখুন এবং রাউটারের ভালো পারফর্মেন্স উপভোগ করুন। 



রাউটারের চ্যানেল পরিবর্তনঃ 

আমরা সাধারণত যে রাউটার গুলো ব্যবহার করে থাকি এগুলো হল 2.40 GHz এর Router। আপনি যে ব্র্যান্ডের ই রাউটার কিনুন না কেন, প্রতিটি রাউটারের চ্যানেল অটো করা থাকে। যখন একটি নির্দিষ্ট এরিয়ার মধ্যে অনেক গুলো রাউটার থাকে এবং প্রতিটি রাউটারের চ্যানেল অটো করা থাকে তখন এ গুলোর মধ্যে কনফ্লিগ করে যা আমি আগেই বলেছি। 

তাই Router সেটিংস থেকে ওয়্যারলেস সেটিংস এ যেতে হবে। এখানেই আপনি চ্যানেল পাবেন। চ্যানেল সাধারণত ১-১৩ এর মধ্যে হয়ে থাকে। আপনি ৬ অথবা ১১ সিলেক্ট করে দিবেন। তাহলেই আপনার রাউটারের চ্যানেল পরিবর্তনের কাজ আপাতত শেষ।


চ্যানেল ব্যান্ড উইথ এবং মোড পরিবর্তনঃ

রাউটারের চ্যানেল পরিবর্তন এর পাশাপাশি চ্যানেল ব্যান্ড উইথ এবং মোডও পরিবর্তন করতে হবে রাউটার সেটিংস থেকে। সাধারণত চ্যানেল ব্যান্ড উইথ এবং মোডও প্রায় সকল রাউটারে একই থাকে। তাই আপনাকে একটু টেকনিক করে Router এর চ্যানেল ব্যান্ড উইথ এবং মোডও পরিবর্তন করে দিতে হবে। 

তাই এই কাজের জন্যেও ঠিক একই ভাবে রাউটার সেটিংস থেকে ওয়্যারলেস সেটিংস এ যেতে হবে। এখানে ব্যান্ড উইথ এবং মোড দুটোই পাবেন। ব্যান্ড উইথ সাধারণত 20 MHz - 40 MHz পর্যন্ত হয়ে থাকে। আপনি এখান থেকে ব্যান্ড উইথ 20 MHz সিলেক্ট করে দিবেন। আর মোড টি আপনি bgn mixed মোড এ সিলেক্ট করে দিবেন।যা ওপরের চিত্রে দেখানো হয়েছে। এই কাজ গুলো শেষ হয়ে গেলে সেভ দিয়ে , রিস্টার্ট এ ক্লিক করে বেরিয়ে আসবেন।   

সমস্ত ডিভাইসের জন্য সংযোগ আপডেট করুনঃ 

আপনি রাউটার সেটিংস থেকে যখন Router এর পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করবেন, তখন সমস্ত ডিভাইস ডিস-কানেক্ট হয়ে যাবে আপনার রাউটার থেকে। এখন আপনি যেই ডিভাইস গুলোকে আপনার রাউটারের সাথে কানেক্ট করতে চান শুধু মাত্র সে গুলোই  পাসওয়ার্ড দিয়ে কানেক্ট করবেন। এতে আপনার নেটের ইউজার সংখ্যা সীমিত থাকবে এবং নেট স্পীড ভাল পাবেন।  

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন