Basic Info BD https://www.basicinfobd.com/2022/02/blog-post_36.html

গুগল টাস্ক ব্যবহারের পূর্বে ৭ মিনিটের গাইড লাইনস

 ইন্টারনেটের দুনিয়ায় সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম হল গুগল। হ্যাঁ, ঠিক তাই  আমি সার্চ ইঞ্জিন গুগলের কথায় বলছি। আপনি কি জানেন ? গুগল শুধু একটি সার্চ ইঞ্জিন ই নয় বরং আমাদের প্রতিদিনের কাজকে সহজ করতে গুগল নিয়মিত বানাচ্ছে অনেক ধরণের অ্যাপ যেমন- গুগল টাস্ক, গুগল কিপ, গুগল ম্যাপ, গুগল ডক, গুগল স্লাইড, গুগল ড্রাইভ ইত্যাদি। আজকের এই পোস্টে আমরা জানব কি ভাবে Google Tasks ব্যবহার করতে হয়। 




গুগল টাস্ক কিঃ

Google Tasks হল এমন একটি অ্যাপ যার সাহায্যে আমরা আমাদের কাজ গুলোর চেক লিস্ট বানাতে পারি। অর্থাৎ প্রতিদিন আমরা যে কাজ গুলো করি তার একটিও যেন বাদ না পড়ে যায় সেই বিষয় টি মনে করিয়ে দেবে গুগল টাস্ক অ্যাপ। তো বুঝায় যাচ্ছে, অনেক গুলো কাজ সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করার জন্য Google Tasks আমাদের কর্মব্যস্ত জীবনকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। 

ঠিক তাই গুগল টাস্ক আপনাকে এই সুবিধাটিই দিচ্ছে। যাতে করে আপনি আপনার সব কাজের চেক লিস্ট বানাতে পারেন। আপনি একই সাথে অনেক গুলো চেক লিস্ট বানাতে পারবেন। গুগল টাস্ক ব্যবহার করার জন্য আপনার অবশ্যই  একটা গুগল একাউন্ট থাকতে হবে। আপনি চাইলে Google Tasks  WebAndroidIOS এর জন্য ডাউনলোড করতে পারেন। তো চলুন, আর দেরি না করে গুগল টাস্ক এর ব্যবহার জেনে নিই। 

ডেক্সটপে গুগল টাস্ক এর ব্যবহারঃ

১। ডেক্সটপ থেকে প্রথমে আপনার জি-মেইলে লগইন করুন। এরপর ডান দিকে ক্যালেন্ডার, কিপ এর নিচে নীল আইকন দেখতে পাবেন। এটিই হল Google Tasks, এতে ক্লিক করুন।  


২। গুগল টাস্ক এ ক্লিক করার পর যে উইন্ডো টি আসবে এতে Add a task লিখা নীল আইকন দেখতে পাবেন।এতে ক্লিক করুন। 


৩। এখন আপনি আপনার প্রথম টাস্ক টি লিখার জন্য টাইটেল, ডিটেইল এবং ডেট / টাইম অপশন গুলি পাবেন। যা নিম্নের চিত্রে দেখানো হল-  


৪। আপনার কাজ গুলো টাস্কে লিখার পর কোন কাজের বিস্তারিত নোট করার জন্য সাব টাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। আপনার লিখা টাস্কের ডান সাইডে থ্রি ডটে ক্লিক করলে Add a subtask  লিখা অপশন টি পাবেন। 


৫। আপনার কাজটি যখন শেষ হয়ে যাবে তখন টাস্কের বাম পাশে বুদবুদ চিহ্নে মাউস পয়েন্টার রাখলে নীল টিক চিহ্ন দেখাবে। এখন এতে ক্লিক করলে টাস্ক টি রিমুভ হয়ে যাবে। এভাবে আপনি আপনার সম্পন্ন হয়ে যাওয়া কাজ টি Google Tasks থেকে রিমুভ করতে পারবেন।  

আপনার গুগল টাস্কে ই-মেইল যুক্ত করার পদ্ধতিঃ

যদি আপনি কোনও গুরুত্বপূর্ণ ই-মেইল পান তবে আপনি অবিলম্বে উত্তর দিতে খুব ব্যস্ত থাকবেন, আপনি পরে এটি আপনার গুগল টাস্ক লিস্টে যুক্ত করতে পারেন। এটি করার জন্য এখানে দুটি ভিন্ন উপায় রয়েছে এগুলো হল- 
১। যে ই-মেইল টি Google Tasks লিস্টে যুক্ত করবেন সেই ই-মেইলটি ধরে রাখুন এবং এটিকে আপনার ওপেন করা টাস্ক তালিকায় টেনে আনুন। আপনি টাস্কের নীচে ই-মেইল আইকনটি দেখতে পাবেন, আপনি যদি ক্লিক করেন তবে আপনাকে ই-মেইলটিতে নিয়ে যাবে।



২। আপনি যদি ই-মেইলের মধ্যে থাকেন তবে যখন আপনি সিদ্ধান্ত নেন যে আপনি এটি টাস্ক লিস্টে যুক্ত করতে চান, তখন কেবল আপনার ই-মেইলের উপরে অবস্থিত Add to tasks আইকনে ক্লিক করুন তাহলেই ই-মাইল টি গুগল টাস্ক লিস্টে যুক্ত হয়ে যাবে। 


গুগল টাস্ক অ্যাপ এর ব্যবহারঃ 

গুগল টাস্ক অ্যাপ ডেক্সটপের পাশাপাশি স্মার্ট ফোনেও ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে প্লে স্টোর / অ্যাপ স্টোর থেকে Google Tasks অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। ইতিমধ্যেই ডাউনলোড লিংক ওপরে দিয়েছি। 
১। গুগল টাস্ক অ্যাপটি আপনার ফোনে ইন্সটল করার পর ওপেন করলে যে উইন্ডো টি দেখতে পাবেন, তাতে নীল ব্লকে Get started লিখা আছে। এতে ক্লিক করতে হবে।যা নিম্নে পিকচারে দেখানো হল। 


২। পরবর্তি ধাপে নীল ব্লকে Add a new task লিখা বাটনে ক্লিক করতে হবে। 


৩। এখন আপনার ফোনের কী-বোর্ড ব্যবহার করে নিউ টাস্কে লিখতে পারবেন। লিখা হয়ে গেলে Done অথবা Save এ ক্লিক করতে হবে।  


৪। এই অ্যাপ এর মধ্যে আপনি যদি আপনার টাস্কে ক্লিক করেন, তাহলে আপনি Add details, Add date, Add subtasks অপশন গুলো পাবেন। এখন আপনি যদি আপনার ক্যালেন্ডারে আপনার কাজটি যুক্ত করতে চান তাহলে আপনাকে "Add date" এ ক্লিক করতে হবে।

৫। Add date" এ ক্লিক করলে ক্যালেন্ডার ওপেন হয়ে যাবে। এখন আপনার ইচ্ছা মত ডেট সিলেক্ট করে দিয়ে Ok তে ক্লিক করুন। 
৬। Google Tasks অ্যাপে সাব টাস্ক সহ যে কাজ গুলো লিখা থাকে তা সম্পন্ন হয়ে গেলে ডেক্সটপের মত টাস্কের বামে বুদবুদে ক্লিক করলে কাজ গুলো রিমুভ হয়ে যাবে।  


গুগলের অনেক গুলো অ্যাপস এর মধ্যে গুগল টাস্ক এর ব্যবহার কোন অংশে কম নেই। আমাদের কর্মব্যস্ত জীবনে অনেক কাজ করতে ভুল হয়ে যায়, ছাড়া পড়ে যায় এটায় স্বাভাবিক। তাই আমাদের কাজ গুলো সুন্দর এবং সহজ ভাবে করার জন্য Google Tasks ব্যবহার করতে পারি। 

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন